বাংলাদেশের অবস্থান এবং দুর্যোগ

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপূর্ব লীলাভূমি বাংলাদেশ পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ ব – দ্বীপ । নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগ এদেশের মানুষের নিত্যসঙ্গী । প্রায় প্রতিবছর কোনাে না কোনাে প্রাকৃতিক দুর্যোগ এদেশের জনজীবনকে বিপর্যস্ত করে দেয় । প্রাকৃতিক দুর্যোগ কী যেসব ঘটনা মানুষের স্বাভাবিক জীবনধারাকে ব্যাহত করে , মানুষের সম্পদ ও পরিবেশের মারাত্মক | ক্ষতিসাধন করে এবং যার জন্য আক্রান্ত জনগােষ্ঠীকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে ব্যতিক্রমধর্মী প্রচেষ্টার মাধ্যমে মােকাবিলা করতে হয় , তাকে দুর্যোগ বলে । আর প্রাকৃতিক কারণে সৃষ্ট দুর্যোগকে প্রাকৃতিক দুর্যোগ বলা হয় ।

বাংলাদেশের অবস্থান এবং দুর্যোগ

বাংলাদেশের অবস্থান এবং দুর্যোগ

হিমালয় ও ভারত থেকে নেমে আসা ৫৪ টি নদী , বিশাল পদ্মা , মেঘনা , যমুনা , ব্রহ্মপুত্র , তিস্তার প্রবাহের সাথে মিশে শত শত নদী বয়ে গেছে এদেশের ওপর দিয়ে । নদী মিশেছে সাগরে । মূলত নদীবাহিত পলিমাটিতে তৈরি একটি বদ্বীপ এই বাংলাদেশ । এর সঙ্গে মিলেছে বঙ্গোপসাগর থেকে ওঠা উপকূলীয় অঞ্চল এবং দ্বীপসমূহ । বাংলাদেশের দক্ষিণাংশ জুড়ে রয়েছে বঙ্গোপসাগর । ফলে সাগরে ঝড় উঠলে তা প্রবল বেগে ধেয়ে আসে উপকূলে । সঙ্গে ভয়ংকর জলােচ্ছাস ৮/১০ ফুট উচু হয়ে আছড়ে পড়ে , মুহূর্তে ভাসিয়ে নিয়ে যায় উপকূলীয় অঞ্চলের বাড়িঘর । মানুষ , গবাদিপশু ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয় । ভেঙে পড়ে গাছপালা । ঐসব অঞ্চল পরিণত হয় এক বীভৎস মৃত্যুপুরীতে । যারা বেঁচে থাকে তাদের হাহাকারে আর স্বজন হারানাের বেদনায় আকাশ – বাতাস ভারি হয়ে ওঠে । সর্বস্ব হারানাে নিঃস্ব মানুষগুলাের বেঁচে থাকাই যেন কঠিন হয়ে দাঁড়ায় ।

প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণ

পরিবেশ দূষণে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে পৃথিবীর বহু দেশে সৃষ্টি হচ্ছে এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ । তবে শতকরা ২০ থেকে ২৫ ভাগ জলবায়ু পরিবর্তন প্রাকৃতিক কারণে হয়তাে হতে পারে । তবে বেশিরভাগ পরিবর্তন হচ্ছে মনুষ্য সৃষ্ট । বিশেষজ্ঞরা বলেছেন , জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য সবচেয়ে বেশি দায়ী শিল্পোন্নত দেশগুলাে । এদের অতি ভােগবিলাসিতা ও যন্ত্রনির্ভরশীলতার জন্য পৃথিবীতে গ্রিন হাউস গ্যাসের পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে । এসব দেশের কলকারখানা ও গাড়ি থেকে অতিমাত্রায় কার্বন – ডাইঅক্সাইড নিঃসরণের ফলে বায়ুমণ্ডলের ওজোন স্তর ক্ষয় হয়ে যাচ্ছে । সেই সঙ্গে বাড়ছে তাপমাত্রা । তাতে মেরু অঞ্চল ও বিভিন্ন পর্বতে জমে থাকা বরফ গলে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়ছে । সমুদ্র ও নদীর কম্পন বাড়ছে । ফলে নদী ও সমুদ্রের উপকূলে ভাঙনের হারও বেড়ে যাচ্ছে । বাংলাদেশসহ বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলাে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ।

জলবায়ু পরিবর্তন ও অপরিকল্পিত উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কারণে

দেশের বেশিরভাগ নদী শুকিয়ে যাচ্ছে । পলি জমে বেশকিছু নদী দেশের মানচিত্র থেকে হারিয়ে গেছে । দেশের প্রধান নদীগুলাে বিভিন্ন স্থানে এসে ভরাট হয়ে যাচ্ছে । পদ্মা , মেঘনা , ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার মাধ্যমে হিমালয় থেকে ভারত হয়ে বাংলাদেশের নদীগুলােতে পানি এলেও এগুলাের স্রোতধারা অনেকটা কমে গেছে । ব্রহ্মপুত্রের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক । পদ্মার বুকেও বিভিন্ন স্থানে চর পড়ে নদী ভরাট হয়ে যাচ্ছে । ফারাক্কার প্রভাবে গত তিন দশকে বাংলাদেশের ৮০ টি নদীর ওপর মারাত্মক প্রভাব পড়েছে । এক সময়ের খরস্রোতা নদী হিসেবে পরিচিত দেশের ১৭ টি নদী মরা নদীতে পরিণত হয়েছে । আরও ৮ টি নদী মৃত প্রায় । এসব নদী ড্রেজিং করে সচল করারও কোনাে ব্যবস্থা নেওয়া হয় না । ফলে বর্ষাকালে নদীর উপচে পড়া পানি প্লাবিত করে ফসলের মাঠ , জনবসতি । প্রতি বছরই বন্যা এদেশের নিয়তি হয়ে দাঁড়িয়েছে । বন উজাড় করাও প্রাকৃতিক দুর্যোগের আরেকটি কারণ । প্রত্যেক দেশের মােট আয়তনের ২৫ % বনাঞ্চল থাকা যেখানে প্রয়ােজন সেখানে বাংলাদেশে সরকারি হিসাবে মাত্র ১৬ % ভাগবনাঞ্চল রয়েছে ।


বাংলাদেশের প্রাকৃতিক দুর্যোগ

নদ – নদী , বন – বনানী , এলনিনাে ও লা – নিনার প্রভাবে এদেশে বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক দু প্রতিনিয়ত হানা দেয় । এসব প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে উল্লেখযােগ্য হলো বন্যা , সাইক্লোন , জলােচ্ছাস , ঝড় – ঝঞ , খরা , নদী ep ভূমিকম্প , লবণাক্ততা ইত্যাদি । বন্যা : প্লাবন বা বর্ষার ভয়াল রূপ হলাে বন্যা । বন্যার করাল গ্রাসে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিপন্ন হয়ে যায় । অসংখ্য মানুষ । গৃহপালিত পশু প্রাণ হারায় , ঘর – বাড়ি ও কৃষিফসল বিনষ্ট হয় । বিগত চার দশক থেকে বন্যা বাংলাদেশের একটি বার্লিক সস পরিণত হয়েছে । ১৯৪৫ ও ১৯৫৫ সালের বন্যা মানুষের মনে এখনও বিভীষিকারূপে বিরাজ করছে । ১৯৬৪ সালের বন্যায় সারা দে প্লবিত হয়েছিল । ১৯৭০ সালেও দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয় । ১৯৭৪ ও ১৯৮৮ সালের বন্যায় দেশের মারাত্বক ক্ষণ সাধিত হয়েছে । ১৯৯৮ সালের বন্যাও ছিল ভয়াবহ । এসব বন্যায় ব্যাপক প্রাণহানিসহ ফসল ও সম্পদের প্রচুর ক্ষতি সাধিত ব শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা হয় ১৯৯৮ সালে । এ দীর্ঘস্থায়ী মহাপ্লাবনে দেশের বহু ক্ষেতের ফসল , ঘর – বাড়ি ও মূল্যবান সম্পদ মারাত্মক ক্ষতি হয় । স্মরণকালের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ হলাে ২০০৪ সালের বন্যা । এ বন্যায় দেশের সার্বিক ক্ষয়ক্ষয়ি । পরিমাণ প্রায় ৪২ হাজার কোটি টাকা ।

Leave a Reply